শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৩০ পূর্বাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

বিভিন্ন পার্কে এ কী দৃশ্য, কোপত কোপতিদের আস্তানা। ভেঙে গুঁড়িয়ে দিন আপনারা। জেগে উঠুন সচেতন মহল, আর ঘুমিয়ে থাকবেন না।
খাঁন মোঃ আঃ মজিদ জেলা প্রতিনিধি দিনাজপুর / ৬৪ বার
আপডেট : শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১

দিনাজপুর সহ সর্বোস্তরে সরকারি বেসরকারি জেলা উপজেলায় বিভিন্ন ধরনের পার্ক রয়েছে। পুলিশ প্রশাসনের নজর দারি না থাকায় গ্রাম গ্ৰঞ্জে শহর বন্দরে উঠে আসা বিনোদন পার্ক গুলোতে কোপত কোপতিরা আস্তানা করেছেন। কোন ঝোপের আড়ালে, বসে থাকা রেস্ট হাউসে বা কোন ঘরের মধ্যে অসামাজিক কার্যকলাপের সাথে জড়িয়ে পড়ছে। অভিভাবক পিতা মাতার অবহেলার কারণে তাদের প্রতি সু দৃষ্টি না দেওয়ায় ডিজিটাল যুগের ছেলেদের পাল্লায় পরে মেয়েরা আজ দিশেহারা। একটু সুখের আশায় চাকুরী থেকে শুরু করে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভনে যার কারনে গণধর্ষণের শিকার হচ্ছে। ওই লম্পট চিটার লুচ্চদের পাল্লায় পরে সর্বস্ব বিলিয়ে দিয়ে অবৈধ ভাবে মিলামিশা করে সন্তান গর্ভধারণ করছে। ছেলেরা যখন বুঝতে পারে তখন কিন্তু ছটকে পড়ে। মেয়েরা তখন প্রাইভেট কোন হাসপাতাল, সদর জেনারেল হাসপাতাল ও মেডিকেল হাসপাতালে নিজেদের বাঁচানোর জন্য মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ওই অবৈধ সন্তানটি এমার করিয়ে থাকে। ওই সন্তান যখন ভূমিষ্ঠ হয় এই পৃথিবীর মুখ দেখার আগে তাদের জায়গা হয় রাস্তার পাশে পড়ে থাকা ময়লা ফেলানোর ডাসবিন হয়তো কোন ড্রেন কালভাট অথবা কোন জঙ্গলে। এর জন্য দায়ী কারা। এই সমাজে উচ্চ কন্ঠে কথা বলে যারা। অভিভাবক পিতা মাতারা। লোকলজ্জায় মুখ লুকিয়ে থাকে তারা। জবাব দিতে পারছে না। কোন একদিন প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হবে। এখনো সময় আছে ছেলে মেয়েদের হাতের নাগালের বাইরে যেতে না দেওয়াই ভালো। পুলিশ প্রশাসনের কড়া নজর দারি দেশের বিভিন্ন পার্ক গুলোতে দেওয়া উচিত বলে মনে করে অভিভাবক পিতা মাতা সচেতন মহল ও সাধারণ জনগন।নিজেরা ভালো থাকবেন অন্যদের ভালো রাখবেন।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ