মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ০১:৫১ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

তানোরে সনাতন ধর্মালম্বীদের সাথে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে মন্দির পরিদর্শন করেন মেয়র প্রার্থী সুজন।
বেনজির আহমেদ   তানোর(রাজশাহী)প্রতিনিধি / ১২১ বার
আপডেট : মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১

রাজশাহী  তানোর পৌরসভার সনাতন ধর্মালম্বীদের সাথে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে মতবিনিময় ও মন্দির পরিদর্শন করেন আগামী পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী (সম্ভাব্য) প্রার্থী জনাব আবুল বাশার সুজন।

জানা গেছে চলতি বছরের ২৫শে অক্টোবর রবিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা অবধি সনাতন ধর্মালম্বীদের সব চাইতে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডের দুর্গা মন্দির পরিদর্শন, এবং স্থানীয় সাংসদের পক্ষ থেকে প্রত্যেকটা মন্দিরে ১০,০০০ টাকা করে আর্থিক অনুদান প্রদান এবং সার্বিক সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সনাতন ধর্মালম্বীদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও শারদীয় শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

এদিন সুজন প্রায় শতাধিক মোটরবাইক বহর নিয়ে পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডের প্রতিটি পুজা মন্ডপ পরিদর্শন করেছেন। সুজনের আগমণের খবরে জনতার ঢল নামে নেতাকর্মীরা সুজনকে নিয়ে বিভিন্ন স্লোগানে স্লোগানে এলাকা মুখরিত করে তোলেন। এ সময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনা, স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী এবং উপজেলা চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়নার জন্য সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করে সুজন বলেন, আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থী যেই হোক নৌকার বিজয় ঘটাতে হবে। তিনি বলেন, নৌকা স্বাধীনতা, গণতন্ত্র, আইনের শাসন,ভোট ভাতের অধিকার ও উন্নয়নের প্রতিক, নৌকার বিজয় ব্যতিত উন্নয়ন সম্ভব নয়।

তিনি বলেন, পৌরবাসী আপনারা বার বার ভুল করে নৌকা ও স্বাধীনতাবিরোধীদের বিজয়ী করে উন্নয়ন বঞ্চিত থেকে সেই ভুলের খেসারত দিচ্ছেন, সময় এসেছে সেই ভুল শুধরিয়ে নৌকার বিজয় ঘটিয়ে উন্নয়েনর সঙ্গে সম্পৃক্ত হবার। তিনি বলেন, মনে রাখবেন পৌরসভা স্থানীয় সরকার নির্বাচন এই নির্বাচনের জয়-পরাজয়ে সরকারের ওপর কোনো প্রভাব পড়ে না, প্রভাব পড়ে স্থানীয় নাগরিকগণের ওপর। কারণ সরকার সমর্থীত প্রার্থী বিজয়ী হলে এলাকার টেকসই, দৃশ্যমান উন্নয়ন হয় নাগরিক সেবার মান বাড়ে, তাই সিদ্ধান্ত নিতে হবে আপনাদেরকেই বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাবেন না পিছিয়ে পড়বেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন তানোর পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াজির হাসান প্রতাপ সরকার, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জুয়েল রানা, মোর্শেদুল মোমেনিন রিয়াদ,রামিল হাসান সুইট ও মাহাবুর রহমান প্রমুখ।এছাড়াও স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী এবং বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ