শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:১২ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

ধর্ষণ ও নারী-শিশুর প্রতি সহিংসতা রোধে পলাশে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন
বিল্লাল হোসেন, নিজেস্ব প্রতিনিধি / ৬৭ বার
আপডেট : শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০

নোয়াখালী  জেলার বেগমগঞ্জে বিবস্ত্র করে বর্বরোচিত নারী নির্যাতন এবং সাম্প্রতিক বিভিন্ন গণধর্ষণ ও নারী নির্যাতন-নিপীড়ণের প্রতিবাদে উত্তাল নরসিংদীর পলাশ। বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে দুপুর পর্যন্ত পলাশ উপজেলা বাসস্ট্যান্ড থেকে উপজেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের সামনের সড়কে ৫টি সামাজিক সংগঠন ও শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও আলোচনা সভা করেছে।

”ধর্ষকের কোন ধর্ম নেই,সমাজে তোর স্থান নেই”,”ধর্ষকের বিচার চাই,ঘরে ঘরে হবে হারকিউলিস ভাই”,“চল যাই যুদ্ধে, ধর্ষকের বিরুদ্ধে”, “ধর্ষকের লাগাম ধরো, মা-বোনকে রক্ষা কর”, “জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্র সমাজ জেগেছে”, “আমার সোনার বাংলায়, ধর্ষকের ঠাই নাই” প্রভৃতি প্লেকার্ড নিয়ে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষ এ মানববব্ধন ও বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেয়।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উদ্দীপ্ত তারুণ্য সংগঠনের সভাপতি রফিকুল ইসলাম শান্ত, দুরন্ত পলাশের সভাপতি মাসুদুল ইসলাম রানা, সাধারণ সম্পাদক সোহরাব হোসাইন রোকন, পলাশের পাপড়ির সভাপতি শেখ রাসেল, স্বপ্নপুরণ সংঘের সভাপতি সাব্বির হোসেন ভূঁইয়া, স্মাইল এর সাধারণ সম্পাদক ইমন ফারাবী, পলাশ শাখার সাধারণ সম্পাদক সোহেল খান প্রমুখ। এসময় সংগঠনগুলোর সাথে পলাশ উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ জাবেদ হোসেন একাত্মতা পোষন করে বলেন, কেউ যাতে এই আন্দোলনকে ভিন্নখাতে না নিতে পারে। সরকার অবশ্যই ধর্ষকদের বিচারের আওতায় আনবে এবং সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদান করবে।

সংগঠনের বক্তারা দেশব্যাপী চলমান ধর্ষণ, নারীর প্রতি সহিংসতায় জড়িতদের গ্রেফতার ও নতুন করে আইন তৈরি করে সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসির দাবী জানান। নরসিংদী জেলা প্রশাসন, পলাশ উপজেলা প্রশাসন ও দেশের সর্বোচ্চ পদে মায়ের জাতি নারীরা দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন উল্লেখ করে ধর্ষণ ও নির্যাতনের সাথে জড়িতদের সুষ্ঠু বিচারের মাধ্যমে সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি কার্যকরের দাবী জানান। তারা আরও বলেন, আইয়ামে জাহেলিয়ার বর্বর যুগকে হার মানিয়েছে। স্বাধীন বাংলাদেশে আমার মা, আমার বোন আজ ধর্ষিত হচ্ছে এতে আমরা লজ্জিত।

আলোচনা সভা শেষে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে বিবস্ত্র করে বর্বোরোচিত নারী নির্যাতন ও সাম্প্রতিক বিভিন্ন গণধর্ষণসহ নারী নিপীড়নের প্রতিবাদে নরসিংদী জেলার পলাশ উপজেলার উদ্দীপ্ত তারুণ্য, পলাশের পাপড়ি ও স্বপ্নপুরুণ সংগঠনের পক্ষে ৮ দফা দাবি পেশ করে। দাবিসমূহ হলো : দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালে মাধ্যমে ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড নিশ্চিত করে সংসদে নতুন আইন পাস এবং তা দ্রুততম সময়ের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করতে হবে,

ধর্ষণ ও যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষ্যে সারাদেশে জরুরি হটলাইন সেবা চালু করতে হবে, ধর্ষণের মামলার সুষ্ঠু নিষ্পত্তির লক্ষ্যে অভিযোগ গ্রহণ থেকে শুরু করে তদন্ত প্রক্রিয়া অন্তত একজন মহিলা পুলিশ কর্মকর্তা নিয়োগ দিতে হবে, ধর্ষণ এবং নারী শিশু নির্যাতনের নামে হয়রানিমূলক অভিযোগ ও মামলার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে, ধর্ষণ এবং নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার বাদীর নিরাপত্তার দায়িত্ব প্রশাসনকে নিশ্চিত করতে হবে,

প্রশাসনিক মহলের কেউ ধর্ষণের মতো অপরাধকে প্রশ্রয় দিলে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে, সর্বোপুরি উপরোক্ত দাবিসমূহ নিশ্চিতকরণে সরকার প্রধানকে লিখিত অঙ্গীকার দিতে হবে এবং দাবিসমূহ যথাযথ নিশ্চিত করতে একটি কমিটি গঠন করতে হবে, যেখানে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের একটি অংশকে অবশ্যই অন্তর্ভুক্ত করতে হবে, ধর্ষণের গ্রাম্য সালিশ বাতিল করতে হবে। শেষে এই দাবিসমূহ পলাশ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুমানা ইয়াসমিনের হাতে তুলে দেন।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ