শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:০১ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

পৌরবাসীর উন্নয়ন ও অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে কাজ করছেন সুজন
সোহেল রানা নিজস্ব প্রতিবেদক / ৮৪ বার
আপডেট : শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০

রাজশাহী তানোর পৌরসভার আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে চান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সমাজ সেবক ও আ:লীগ নেতা আবুল বাশার সুজন।

ইতিমধ্যে তিনি তানোর পৌরবাসী ও আওয়ামী লীগ সহ সংগঠনের নেতা কর্মীর কাছে আস্থাভাজন প্রতিনিধি হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলেছেন।

তানোর পৌরসভাৱ ৯ টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় চায়ের দোকানে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন সুজন কারণ বিগত ২০ বছর যাবত তানোর পৌরসভার কোন নেতা এইভাবে নিজস্ব অর্থে সাধারণ মানুষের সেবা ও জনসাধারণের খোঁজ খবর নেননি ।

দেশে মহামারী কৱোনা ভাইৱাসেৱ হাত থেকে বাঁচতে যখন মানুষ ঘর বন্দী হয়েছিলো ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিবহনসহ সৱকাৱি ভাবে সারাদেশ লকডাউন ঘোষণা কৱা হয়েছিল।

ঠিক তখনই তানোর পৌরসভার অসহায় মানুষের পাশে দেবদূতের মতন হয়ে নিজ অর্থায়নে খাদ্য সামগ্রী চাল ডাল আলু তৈল ও অন্যান্য সামগ্রী। পাশাপাশি বিভিন্ন মাদ্রাস, মসজিদ,মন্দিরে অনুদান ও অযোগ্য রাস্তা সংস্কার করা এবং তরুণদের মাঝে খেলাধুলার সামগ্রী দেওয়া চলমান রেখেছেন।

দল-মত নির্বিশেষে তানোর পৌৱবাসীর একটাই চাওয়া আগামীতে তানোর পৌর মেয়র হিসাবে সুজনকে চাই।

চলতি মাসের ৪ তারিখ শুক্রবার তানোর পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড কুঠিপাড়া জামে মসজিদে মুসল্লিদের সঙ্গে জুম্মার নামাজ আদায় করেন এবং মসজিদের উন্নয়নকল্পে একটি দুই টনের এসি(Ac) সহ কুটিপাড়াৱ রাস্তা চলাচলের অযোগ্য হয়ে থাকায় সংস্কার করার দায়িত্ব নেন আবুল বাশার সুজন।

সুজন,, কতটা কর্মী-জনবান্ধব রাজনৈতিক নেতা সেটা তার অবস্থান দেখলেই অনুমান করা যায়। দলীয় কার্যালয়, বা মাঠ-ঘাট যেখানে সুজন সেখানেই শত মানুষের উপস্থিতি সবার একটাই দাবী তারা সুজনেৱ সঙ্গে কথা বলতে চাই আবার সুজনও শত ব্যস্ততার মাঝেও সকলের কথা শোনেন, চেস্টা করেন সকলের চাওয়া-পাওয়া পুরুণের না পারলেও কাউকে দুঃখ-কষ্ট না দিয়ে হাসিমূখে বিদায় করেন যা একজন রাজনৈতিক নেতার রাজনৈতিক দূরদর্শীতার পরিচয়ই বহন করে যা সিংহভাগ রাজনৈতিক নেতার নাই।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ