বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০২:২৫ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

চালের দাম বাড়ায় পেছনে মিলারদের দায়ী করছেন ব্যবসায়ীরা
স্টাফ রিপোর্টার খোরশেদ আলম / ৩৩ বার
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০

বোরো মৌসুম শেষে বাজারে ঘাটতি না থাকলেও দেশের আড়ৎগুলোতে চালের দাম বাড়ছে। হঠাৎ করেই চালের দাম বাড়ার পেছনে মিলারদের দায়ী করছেন খুচরা ব্যবসায়ীরা। তবে মিল মালিকরা বলছেন, ধানের দাম বাড়ায় এবার বেড়েছে চালের দাম। দাম বাড়ায় ক্ষুব্ধ ক্রেতারা।

ধান-চালের সবচেয়ে বড় মোকাম নওগাঁয় বেড়েছে সব ধরনের চালের দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতি কেজি চালে বেড়েছে ২ থেকে ৪ টাকা পর্যন্ত। জিরা নাজির, নাজিরশাইল ও মিনিকেট জাতের চাল ৪৪ টাকা থেকে বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪৬ থেকে ৪৭ টাকায়। পাইজাম চাল ৪৫ টাকা থেকে বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪৭ টাকা কেজি দরে।

মোকামে চালের দাম বাড়ায় খুচরা বাজারেও দাম বেড়েছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা। তবে মিলারদের দাবি, স্থানীয় হাটগুলোতে ধানের দাম বাড়ায়, বেড়েছে চালের দামও।

নওগাঁ জেলা চালকল মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ চকদার জানান, শ্রমিকদের ছুটির কারণে আমাদের মিল কারখানাগুলো বন্ধ ছিলো। বন্ধ থাকার কারণে চালের সরবরাহ কিছুটা করে গেছে। সে কারণে বাজার দর সামান্য বৃদ্ধি পেয়েছে।

দিনাজপুরেও চালের পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকলেও কমেনি দাম। ক্রেতাদের অভিযোগ, বোরো মৌসুমে বাজারে নতুন চাল আসলেও বেশি দামেই চাল কিনতে হচ্ছে তাদের।

বিক্রেতারা বলছেন, চালকল মালিকদের বেঁধে দেয়া দামে চাল কিনে সেই হিসেবেই বিক্রি করেন তারা।

এদিকে, নাটোরে এক সপ্তাহের ব্যবধানে বেড়েছে চালের দাম । সব ধরনের চালের দাম কেজিতে দুই থেকে তিন টাকা বেড়েছে । আবহাওয়া অনুকূলে না থাকায় ও চাল উৎপাদন কম হওয়ায় বাজারে এর প্রভাব পড়েছে বলে জানালেন মিলাররা।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ