সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০১:২০ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

বাগমারায় সাত বছেরর শিশু ধর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধন
স্টাফ রিপোর্টার খোরশেদ আলম / ৩১ বার
আপডেট : সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় (৭) বছরের এক শিশু ধর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধ ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রোববার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে এলাকাবাসির ব্যানারে উপজেলার গোয়ালকান্দি বাজারের বটতলা নামক স্থানে আধা ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধ অনুষ্ঠিত হয়।

গোয়ালকান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন সরকারের সভাপতিতে উক্ত মানববন্ধে বক্তব্য রাখেন, গোয়ালকান্দি ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার সহ এলাকাবাসী জাহিদুল, ইসলাম নাজমুল হোসেন,শাহীন আলম, রুবেল, আকবর আলী, রফিক, মহসিনসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবগ বলেন, গোয়ালকান্দির মধ্যপাড়া গ্রামের জনৈক ব্যাক্তির সাত বছরের শিশু মেয়েকে ধর্ষণ একটি জঘন্যতম অপরাধ।

এ অপরাধের সঙ্গে জড়িত ধর্ষক আলালের প্রতি তীব্র নিন্দা জানাই। এবং আলালকে গ্রেফতার করে বিচার ব্যবস্থা যাতে আরও দ্রুত ও কার্যকর হয় প্রশাসনের প্রতি এটিই আমাদের দাবি।

বক্তারা আরো বলেন, সমাজের সবাই যদি একইসঙ্গে সব অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলে তাহলেই সমাজ থেকে এ ব্যাধি দূর করা সম্ভব হবে। সাম্প্রতিক সময়ে প্রায়ই নারী ও শিশু ধর্ষণের কথা শোনা যায়। তাই আমাদের দাবী অপরাধীরা যেই হউক তাকে দ্রুত গ্রেফতার করে বিচারের মাধ্যমে সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করার দাবী জানায়। তাই যত দ্রুত সম্ভব অপরাধী ধর্ষক আলালকে গ্রেফতার করে কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হোক প্রশাসনের কাছে এমন দাবিই জানান তারা।

মানববন্ধে উপস্থিত ছিলেন, সংরক্ষিত আসনে মহিলা মেম্বার মোমেনা বেওয়া, কমেলা বিবি, ভিকটিমের মাতা নারমিন আক্তার, আমজাদ হোসেন, মজনু সাক্ষিদার, নাজমুল হোসেন, শাহীন আলম, রুবেল, আকবর আলী, রফিক, মহসিনসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ প্রমুখ। উল্লেখ্য, (১আগস্ট) শনিবার ঈদের দিন গোয়ালকান্দির মধ্যপাড়া গ্রামের জনৈক ব্যাক্তির সাত বছরের শিশু মেয়েকে একা পেয়ে একই গ্রামের বয়েন উদ্দিনের লম্পট ছেলে আলাল ধর্ষন করে পালিয়ে যায়।

পরে এলাকার লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে এসে ঐ শিশুকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করে। এবং পরেরদিন (২আগস্ট) রোববার শিশুর পিতা নিরুপায় হয়ে বাগমারা থানায় হাজির হয়ে বাদি হয়ে ধর্ষক আলালের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এ ব্যাপারে বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ আতাউর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ধর্ষনের চেষ্টা মামলা হয়েছে । পুলিশ আসামীকে ধরার জন্য চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে এবং দ্রুত আসামীকে ধরা হবে বলে তিনি জানান।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ