শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৯:৩৪ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

সরিষাবাড়ীতে মেয়র রোকনকে অপসারনের দাবীতে কাউন্সিলরদের সাংবাদিক সম্মেলন
তৌকির আহাম্মেদ হাসু সরিষাবাড়ী (জামালপুর)থেকে / ৯৮ বার
আপডেট : শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১

জামালপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও তথ্য প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ডাঃ মুরাদ হাসানকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মানহানিকর, কুরুচিপূর্ণ ও অসত্য বক্তব্য অপপ্রচার চালানোর প্রতিবাদে পৌরসভার মেয়র রুকুনুজ্জামান রোকনকে অপসারনের দাবীতে পৌর পরিষদের সাংবাদিক সম্মেলন করা হয়েছে। আজ শনিবার দুপুরে পৌরসভার মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পৌরসভার প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ আলী।

লিখিত বক্তব্যে প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ আলী বলেন, মেয়রের দায়িত্ব গ্রহণ করার পর থেকে মেয়র রোকন পৌরসভাটিকে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বানিয়েছিল। নিয়মনিতির তোয়াক্কা না করে উন্নয়ন তহবিলের টাকা সৌন্দর্য বর্ধনের নামে মেয়র তার পছন্দের ঠিকাদারি লাইসেন্সের নামে কাজ নিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাত করেছেন।আমরা দায়িত্বভার গ্রহণের পর পৌরসভার ইতিহাসে সর্বোচ্চ পরিমাণ রাজস্ব আদায় করেছি মেয়রের লাগামহীন দুর্নীতির কারণে পৌর পরিষদের কাউন্সিল এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ১৭/ ১৮ মাসের সম্মানি এবং বেতন-ভাতাদি বাকি থাকায় কর্মকর্তা-কর্মচারীরা আজ মানবেতর জীবন যাপন করছেন এবং পৌরসভায় চরম অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে মেয়রের এহেন দুর্নীতি অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার বিরুদ্ধে কাউন্সিলরগণ বার বার প্রতিবাদ করলে মেয়র এবং তার পালিত ক্যাডার কর্তৃক কাউন্সিলরগণ বিভিন্ন সময় শারীরিক ও মানসিক ভাবে নির্যাতিত হয়েছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বিভিন্ন সময় হয়রানির শিকার হয়েছেন মেয়রের অবৈধ হস্তক্ষেপের কারণে বার বার প্রশাসনের দারস্থা হয়েও কাউন্সিলরগণ প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন প্রতিকার না পেয়ে গত ০২-০৫-২০ ইং তারিখ পৌরসভার সকল কাউন্সিলরগণ সর্বম্মতি ক্রমে মেয়রের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব গ্রহণ করেন উক্ত অনাস্থা প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় কর্তৃক নির্দেশিত হইয়া উপ পরিচালক, স্থানীয় সরকার বিভাগ, জামালপুর মহোদয় মেয়রের বিভিন্ন দুর্নীতি এবং অনিয়ম বিষয়ে শুনানিতে কাউন্সিলর এবং মেয়রকে উপস্থিত থাকার লিখিত নির্দেশ প্রদান করেন উক্ত শুনানিতে মেয়র বরাবরের মত উপস্থিত ছিলেন না তদন্ত কালে আমরা মেয়রের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সমুহ প্রমাণ করতে সক্ষম হই মেয়র রোকনের দুর্নীতি ও অনিয়মের কারণে স্থানীয় সরকার মন্ত্রাণালয় কর্তৃক মেয়র পদ হতে বহিস্কৃত হওয়ার ভয়ে মেয়র রুকন দূরভিসন্ধি মূলক ভাবে পৌরসভার আভ্যন্তরিন। তিনি আরও বলেন, ৪ আগস্ট রাত ৮.২৭ মিনিটে মেয়র রুকুনুজ্জামান রোকন তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে তথ্য প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ডাঃ মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে মিথ্যা, অসম্মানজনক, ভীতিপ্রদর্শন ও অপপ্রচার করে। এতে করে তথ্য প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ডাঃ মুরাদ হাসানের মানহানি, সম্মান ও ভাবমূর্তি বিনষ্ট হওয়ায় মেয়র রুকুনুজ্জামান রোকনকে অপসারণের দাবী ও আমরা পৌর পরিষদের সকল কাউন্সিলরবৃন্দ আপনাদের মাধ্যমে এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা করছি সেই সাথে আপনাদের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মহোদয়, সচিব, মহোদয় বিভাগীয় কমিশনার মহোদয়,জেলা প্রশাসক মহোদয়কে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে মেয়র রুকনকে পৌরসভা মেয়রের পদ হতে বহিস্কার করার জন্য বিনীত ভাবে অনুরোধ করছি অন্যথা পৌরসভার সকল কাউন্সিলার এবং পৌর নাগরিকগণ মেয়রের অপসারণের জন্য চুডান্ত অসহযোগ আন্দোলনের কর্মসূচী ঘোষণা করবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, প্যানেল মেয়র ২ মো. জহুরুল ইসলাম, কাউন্সিলর কালা চাঁদ পাল, সোহেল রানা, আব্দুস সাত্তার, নুরুল ইসলাম,আফসার উদ্দিন, আব্দুল মালেক, রিপন মন্ডল, চায়না বেগম, শিউলি বেগম, রেনু আক্তারসহ পৌর পরিষদের অন্যান্যন কর্মকর্তা ও কর্মচারী বৃন্দ।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ