শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৪:৫৬ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

তানোরের নির্যাতিত বৃদ্ধ আব্দুস সালাম ন্যায় বিচার পাবে কি ?
সোহেল রানা রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি / ১৩৫ বার
আপডেট : শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০

রাজশাহীর তানোরে পুর্ববিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষরা এক বৃদ্ধকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে জখম করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অথচ ন্যায় বিচারের অাশায় বৃদ্ধ আব্দুস সালাম প্রশাসনেরর দ্বারে দ্বারে
ঘুরছেন। গত ৫মে দিবাগত রাতে তানোরের পাঁচন্দর ইউপির শাহাপুরদক্ষিনপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় গত ৬ মে আব্দুস সালাম বাদি হয়ে নুরুল ইসলামসহ তিন জনকে আসামি করে তানোর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

কিন্ত্ত অভিযোগের দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ এখানো অভিযোগ আমলে নেয়নি। তবে গত ১৩ জুন শনিবার বিকেলে থানা মোড়ে এস আই আব্দুল হামিদের মধ্যস্থতায় সালিস বৈঠক বসে সেখানে নুরুল ইসলামকে দোষী সাব্যস্ত করে তার মাত্র ১১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় তবে বৃদ্ধ সালাম বিচারের নামে এই প্রহসণ মানতে অপারগতা প্রকাশ করে।

স্থানীয়রা জানান, একদিন রাতে ধানতৈড় গ্রামের সুদখোর জনৈক হাশেম আলীর নির্দেশে শা হাপুরদক্ষিনপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলাম এবং তার দুই পুত্র উজ্জ্বল ও চন্চল সন্ত্রাসী কায়দায়,বল্লম, লাঠিসোটা সহ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বৃদ্ধ আব্দুস সালামকে বেধড়ক পিটিয়ে জখম করে। এ ঘটনায় আহত সালামকে প্রথমে তানোর ও পরে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।এখানো সালাম অসুস্থ ইতমধ্য তার চিকিৎসায় প্রায় ৬০ হাজার টাকা খরচ হয়ে গেছে। অন্যদিকে এ ঘটনায় পুলিশ উজ্জ্বলকে আটক করে থানায় নিয়ে গেলেও রহস্যজনক কারণে ছেড়ে দিয়েছেন বলে ভিকটিম পরিবার নিশ্চিত করেছে।
এবিষয়ে জানতে চাইলে স্থানীয় ইউপি সদস্য পলাশ বলেন, বৃদ্ধ আব্দুস সালামের পরিবারের উপর অন্যায় করা হয়েছে। এব্যাপারে নুরুল ইসলাম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, উভয়ের মধ্য বাকবিতন্ডতার সময় ধাক্কা লেগে
সালাম পড়ে গেলে তার হাত ভেঙ্গে যায়। এবিষয়ে আব্দুস সালাম বলেন, নুরুল ইসলাম ও তার দুই পুত্র লাঠি-সোটা দিয়ে পিটিয়ে তার হাত ভেঙ্গে দিয়েছে। তিনি বলেন, সে দিনমজুর মানুষ হাত ভেঙ্গে প্রায় এক মাস বিছানায় পড়ে আছেন এখানো এক মাস পড়ে থাকতে হবে, আর চিকিৎসা করাতে ইতমধ্য তার প্রায় ৬০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। তিনি বলেন, তিনি ন্যায় বিচার চান। #

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ