বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

নাগরপুরে স্বামীর অত্যাচারে ২ সন্তানের জননীর ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা
মোঃ শহিদুল ইসলাম নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ / ২২১ বার
আপডেট : বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১

আজ ৩ অগাস্ট সোমবার সকাল অনুমানিক ৬-১০ এর সময় টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার মামুদনগর ইউনিয়নের পুষ্টুকামারি গ্রামের রাসেল রানা এর ২ সন্তানের স্ত্রী রিনা বেগম (৪০) বসতবাড়ির সিলিং ফ্যানের সাথে ওরনা পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, গত কয়েক মাস যাবৎ রাসেল রানা দ্বিতীয় বিয়ে করায় প্রায়ই প্রথম স্ত্রী রাশেদা ওরফে রিনার বেগম এর সাথে প্রায়ই দাম্পত্য কলহ থেকে মারপিট করত। গত পরশু দিন রাতে এসব বিষয় নিয়ে রিনা বেগমকে মারপিট করে গতকাল সকালে রাসেল ঢাকা চলে যায়।
পরেদিন রাতে বাচ্চাদের ঘুম পাড়িয়ে মা শুয়ে থাকে। সকালে অনুমানিক সকাল ৬ টার সময় তার শরীর খারাপ লাগলে বড় ছেলেকে রিনা তার মাথায় পানি ঢালতে বলে। ছেলে মা এর মাথায় পানি ঢেলে ঘুমিয়ে পড়ে। সকালে মাকে দেখতে না পেয়ে সন্তানরা মাকে বাড়িতে খুঁজতে থাকে। পরে, সকাল অনুমানিক ১০ টা এর সময় তারা মাকে বসত ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে ওরনা পেচিয়ে ফাঁস নেয়া অবস্থায় পায়। বাচ্চাদের ডাক চিৎকারে পরিবারের লোকজন এবং এলাকাবাসী এগিয়ে এসে থানা পুলিশে খবর দেয়। পরে, তাকে নামানো হলে রিনার দেহ নিথর পায় সবাই।

এ বিষয়ে রাসেল রানার এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে, দাম্পত্য কল ও মারপিট এর ঘটনা অস্বীকার করে বলে, আমি প্রায় গত ২ বছর আগে দ্বিতীয় বিয়ে করেছি। রিনার সাথে আমার কোন কলহ ছিলোনা।
এ বিষয়ে নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আলম চাঁদ বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে নাগরপুর থানা পুলিশের একটি দল দ্রুত ঘটনা স্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন প্রস্তুত করে লাশটি থানায় নিয়ে আসে। এ বিষয়ে একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে এবং তদন্ত চলমান রয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় সকল আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ