মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:০৫ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

সরিষাবাড়ীতে ধর্ষনের চেষ্টা ; থানায় অভিযোগ
তৌকির আহাম্মেদ হাসু ,সরিষাবাড়ী(জামালপুর)প্রতিনিধি: / ১১৩ বার
আপডেট : মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ধর্ষনের চেষ্টার অভিযোগ এনে গত সোমবার রাতে সরিষাবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনাটি উপজেলার ভাটারা ইউনিয়নের ভাটারা মধ্য পাড়া গ্রামে ২রা জুলাই বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটেছে।

অভিযোগে জানা গেছে, সরিষাবাড়ী উপজেলার ভাটারা ইউনিয়নের ভাটারা মধ্য পাড়া গ্রামের মৃত সুরুজ মিয়ার ছেলে মানিক মিয়া ভাই ভাই “স” মিলের মালিক তার “স” মিলের পার্শ্বে বসবাস রত রবীন্দ্র গোপ কে উচ্ছেদ করতে নানা কুট কৌশল অব্যাহত রেখেছে মানিক মিয়া। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৭ সালের ২রা জুন শুক্রবার সন্ধা ৭টায় রবীন্দ্র গোপ বাড়ীতে না থাকার সুযোগে তার স্ত্রী গৌরী রানী গোপ কে কু-প্রস্তাবের এক পর্যায়ে সন্ধায় তাকে র্ধষনের চেষ্টা করে। এ ঘটনার বিচার প্রার্থী হয়ে গৌরী রানী গোপ বাদী হয়ে সরিষাবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। মানিক মিয়া তার উদ্দেশ্য সাধন করতে রবীন্দ্র গোপের পরিবারের উপর কু- নজর সার্বক্ষনিক অব্যাহত রেখেছে। চলতি বছরের (০২ -০৭-২০)ইং গত বৃহস্পতিবার রাত ৩ টার দিকে রবীন্দ্র গোপের স্ত্রী গৌরী রানী গোপ প্রকৃতির ঢাকে সাড়া দিতে ঘর হতে বের হলে মানিক মিয়া তাকে জড়াইয়া ধরে ধর্ষনের চেষ্টা করে। এ ঘটনার বিচার প্রার্থী হয়ে গৌরী রানী গোপ বাদী হয়ে ঘটনার ১২ দিন পর(১৩-০৭-২০)ইং গত সোমবার রাতে সরিষাবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। ওই অভিযোগে ভাটারা মধ্য পাড়া গ্রামের মৃত সুরুজ মিয়ার ছেলে মানিক মিয়া ভাই ভাই “স” মিলের মালিক মানিক মিয়া কে প্রধান বিবাদী করে সরিষাবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।এ নিয়ে এলাকার সচেতন নাগরীকদের মাঝে সমালোচনার ঝড় বইছে। রবীন্দ্র গোপের পরিবার পরিজন নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে সাংবাদিকদের জানান।

অভিযোগ কারী গৌরী রানী গোপ বলেন, মানিক মিয়ার অত্যচারে বাড়ী ঘরে থাকতে পারিনা। প্রসাব পায়খানা কিংবা বাহিরে যেতে পারিনা। আমাকে দেখলে জাপটিয়ে ধরে। এগুলো কাউকে বলতেও পারিনা। উপায়ান্তর না দেখে এলাকার মাতাব্বরদের জানাই। পরে তারা থানায় মামলা করতে বলে। সে মতে আমি থানায় অভিযোগ দেই। ওই ঘটনার জের ধরে ২রা জুলাই বৃহস্পতিবার গভীর রাতে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গেলে মানিক মিয়া আমাকে জডিয়ে ধরে ধর্ষনের চেষ্টা করে।

এ বিষয়ে লম্পট মানিক মিয়ার সাথে সাক্ষাত করতে তার বাড়ীতে গেলে তার ভাগিনা আনিছুর রহমান বলেন, মামা মানিক মিয়া বাড়ীতে নেই। তিনি আরও বলেন, মামা ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ আবু মোঃ ফজলুল করীম জানান,অভিযোগ পাওয়া গেছে। নারী উত্যাক্তকারীকে আটকের চেষ্টা করা হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ