বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

মানিকগঞ্জের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, বিশুদ্ধ পানির অভাব
এ.বি.খান বাবু বার্তা প্রধান / ১৬০ বার
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০

মানিকগঞ্জে গত ২৪ ঘণ্টায় আরিচা ঘাট পয়েন্টে যমুনার পানি ৪২ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে মানিকগঞ্জের সাত উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে নতুন নতুন এলাকায় পানি ঢুকতে শুরু করেছে। দেখা দিয়েছে বিশুদ্ধ পানি ও খাদ্য সংকট।

বুধবার (১৫ জুলাই) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মানিকগঞ্জের দৌলতপুর, শিবালয়, ঘিওর ও হরিরামপুর উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে বেশির ভাগ ঘর-বাড়িতে পানি উঠায় গৃহপালিত পশু-পাখি নিয়ে বিপাকে পড়েছেন এসব আঞ্চলের মানুষ। খাবার পানি ও খাদ্য সংকটের কারণে অনাহারে-অর্ধাহারে দিন কাটছে বানভাসীদের। রাস্তাঘাট তলিয়ে পানিবন্দি হয়েছে পড়েছে প্রায় ১০ হাজার মানুষ। খাদ্য সহায়তার দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

দৌলতপুর উপজেলার জিয়নপুর ইউনিয়নের বন্যাকবলিত গ্রামের আরতি জানান, গত দুই দিনে পানি বৃদ্ধির কারণে গরু-ছাগল নিয়ে খুব খারাপ অবস্থার মধ্যে আছি।
একই গ্রামের খুশি বহন রাজবংশী বলেন, একদিকে করোনার মধ্যে আয়-রোজগার বন্ধ অন্যদিকে বন্যার পানিতে কোনদিকে যাওয়া আসা করা যাচ্ছে না। হাট-বাজার, রাস্তাঘাট তলিয়ে খুব কষ্টের মধ্যে আছি। কেউ দেখতেও আসেননি।
রানী বালা বলেন, আমাদের বাড়িসহ চারদিকে পানি। টিউবয়েলও পানিতে তলিয়ে যাচ্ছে, পানিতে টয়লেট তলিয়ে গেছে ফলে ছেলে-মেয়ে নিয়ে অনেক কষ্টে আছি।

পূজা বলেন, আমি ৯ম শ্রেণীতে পড়ি। এখন করোনার কারণে স্কুল বন্ধ, পড়াশোনা হচ্ছে না। অন্যদিকে বন্যার পানি ঘরে উঠে যাচ্ছে ফলে একদিকে ঘরবন্দি রয়েছি ।

জিয়নপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সোনা মিয়া বলেন, আমার গ্রামের ৬০ শতাধিক বাড়িতে পানি। রাস্তাঘাট তলিয়ে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন গ্রামের মানুষ। এখনো কোন বরাদ্দ পাইনি। সরকারের কাছে জনগণের জন্য খাদ্য বরাদ্দের দাবি জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ