শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:৫০ অপরাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

তানোর থানার মোড়েৱ রাস্তার বেহাল দশা জরুরী সংস্কারের দাবি স্থানীয় ব্যবসায়ীদের
সোহেল ৱানা ৱাজশাহী জেলা প্রতিনিধি / ৮৫ বার
আপডেট : শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০

রাজশাহীর  তানোর থানা মোড়ের ভাঙ্গা রাস্তার গর্তে পানি জমে থাকায় যান-বাহন চলাচলসহ চরম দূর্ভোগে পড়েছেন পথচারীরা। গুরুত্বপূর্ণ এই মোড়ের ভাঙ্গা রাস্তার গর্ত গুলো জরুরী ভাবে (মেরামত) সংস্কারের জন্য কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করছেন ব্যবসায়ীসহ পথচারীরা।

ৱাজশাহী তানোর থানাৱ মোড়ের ব্যবসায়ীসহ পথচারীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তানোর থানাৱ মোড়ে তানোর প্রেসক্লাবের সামনের প্রায় ১শ’ গজ রাস্তা দীর্ঘদিন থেকে ভেঙ্গে বেশ কয়েকটি ছোট বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে আছে। কিন্তু দীর্ঘদিনেও সেই গর্ত গুলো (মেরামত) সাংস্কার না করায় বর্ষার পানি জমে থাকছে। ফলে যান-বাহন চলাচলের সময় গর্তে আটকে যাচ্ছে এবং পানি ছিটকে গিয়ে দোকান সহ পথচারীদের গায়ে পড়ছে।

সেই সাথে পথচারীদেরকে প্রতিনিয়তই বিড়াম্বনায় পড়তে হচ্ছে । রাস্তার গর্তে পানির সাথে জমে থাকা কাঁদার মধ্যেই দিয়েই বাধ্য হয়েই চলাচল করতে হচ্ছে পথচারীদের।

তানোর থানাৱ মোড়ের তৃপ্তি হোটেলের মালিক হিটলার অরফে আরিফ, জনপ্রিয় ফার্মেসী প্রোপাইটার আলাল বলেন, গুরুত্বপূর্ণ এই মোড়ের রাস্তাটির পিস উঠে দীর্ঘদিন থেকে ভাঙ্গা অবস্থায় থাকায় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে । ওই গর্তে পানি ও কাঁদা জমে থাকায় যান-বাহন চলাচলের সময় গর্তের পানি ও কাঁদা ছিটকে পড়ছে দোকানে ও পথচারীদের গায়ে।

পায়ে হেটে চলাচলকারী পথচারীদের পোহাতে হচ্ছে চরম দূর্ভোগ। এই মোড় দিয়ে প্রতিদিন ট্রাক, বাস, ভুটভুটি টেম্পু, সিএনজি অটো রিক্সা, সাইকেল মোটরসাইকেলসহ শত শত মানুষ তাদের প্রয়োজনে এই মোড় দিয়েই চলাচল করেন। কিন্তু মাত্র ১শ’ গজের মধ্যে কয়েকটি গর্তের কারণে সরকারের উন্নয়ন চিত্র ফিকে হয়ে যাচ্ছে।

তানোর থানা মোড়ের বাস মাষ্টার তানোর পৌর সভার ৪নং ওয়ার্ড সাবেক কাউন্সিলর মোমিনুল হক মুকুল বলেন, এইসব গর্তগুলো দীর্ঘদিন থেকে (মেরামত) সংস্কার না করায় যাত্রীরা বাস থেকে নামলেই কাঁদা ও পানি মধ্যে দিয়েই চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে।

বাস চালক পিন্টু বলেন, তানোর-আমনুরা রাস্তা অতিসত্বর মেরামত করা প্রয়োজন। থানা মোড় সদর জায়গা এখানো রাস্তার সংস্কার করার ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের কোন মাথা ব্যাথা নেয়। কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করছি। এনিয়ে উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুনের ব্যাক্তিগত মোবাইলে ফোন দিলে রিসিভ করেননি তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ