সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০৪:০৯ পূর্বাহ্ন

  • বাংলা বাংলা English English

মানিকগঞ্জে প্রেমিকের সামনেই প্রেমিকাকে ধর্ষণ, প্রেমিকার আত্মহত্যা
এ.বি.খান বাবু বার্তা প্রধান / ২১০ বার
আপডেট : সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১

মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে প্রেমিকের সামনে প্রেমিকাকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

গত শুক্রবার (২৭ জুন) দুপুরে আফরোজা গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। এদিকে ওই রাতেই আফরোজার প্রেমিক একই উপজেলার কাকনা গ্রামের আনছার আলী ছেলে অয়নকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দৌলতপুর উপজেলার কলিয়া ইউনিয়নের গ্রামের কাজী আরিফুর ইসলামের মেয়ে আফরোজা আক্তার (১৫) বৃহস্পতিবার দুপুরে তার প্রেমিক অয়ন আলীর সাথে মোটরসাইকেলে ঘুরতে যায়। ঘরিয়ালা এলাকায় রতন, তন্ময়সহ কয়েকজন বখাটে তাদের মোটরসাইকেল থামায়। পরে তারা আফরোজা ও অয়নকে তাদের ক্লাব ঘরে সন্ধ্যা পর্যন্ত আটকে রাখে। ওই সময় তারা অয়নের সামনেই আফরোজাকে ধর্ষণ করে। পরে বখাটেরা আফরোজাকে তার ফুপুর বাড়িতে রেখে আসে। শুক্রবার সেখানেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে আফরোজা।

এদিকে পুলিশের কাছে গ্রেপ্তার হওয়ার পর প্রেমিক অয়ন আলী বলে, তিনি আফরোজাকে নিয়ে বৃহস্পতিবার ঘুরতে বেড়িয়েছিলে। উদীয়মান ক্লাবের ছেলেরা তাদের আটক করে মোবাইল ফোন টাকা পয়সা নিয়ে নেন। এর পর তারা আফরোজাকে মারধরে করে ভয় দেখিয়ে তার সামনেই ধর্ষণ করে।

শুক্রবার সকালে আফরোজার বাবা স্থানীয় মুরুব্বীদের নিয়ে অয়নকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। কিন্তু আফরোজাকে বখাটেরা ধর্ষণ করেছে বলে ওই বিয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন অয়ন।

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মামলার অভিযোগ অনুযায়ী অয়নকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অয়ন বখাটে রতন ও তন্ময়ের বিরুদ্ধে আফরোজাকে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছে। তার অভিযোগ কতটা সত্যতা রয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। তদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি। ছবি : প্রতিকী

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরির আরো সংবাদ